তারিখঃ ২৪শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পাখির প্রতি ভালবাসা

নিজস্ব প্রতিবেদক: সব পাখিই উড়াল শিখে তেমন ই উড়াল শিখতে গিয়ে বাসা থেকে মাটিতে পড়ে গিয়েছিল ফুটফুটে একটি পাখির ছানা। তাকে ধরে অতি যতে আদর করে আবার বাসায় পৌঁছে দিলেন আড়াইহাজারের সাংবাদিক নজরুল ইসলাম। তিনি আড়াইহাজার রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক। তিনি জানান, পাখির প্রতি ভালবাসা তার অনেক আগে থেকেই। পাখীর জন্য নিয়মিত খাবার পানির ব্যাবস্থা করে থাকেন। বাড়ীর গাছে বিভিন্ন প্রজাতির পাখীর বাস তাই রাতে বাড়ির বাহিরে  আলো নিভিয়ে রাখেন। তিনি ৭-৮ বছর আগে সোঁনারগায়ের বারদী লোকনাথ আশ্রম থেকে একটি মাটির তৈরী পাখির বাসা এনে তার উঠোনে জাম্বুরা গাছে বেঁধে দেন। এর পর থেকেই প্রতি বছর এই সময়ে পাখিরা এসে সেই বাসায় ডিম পারে, বাচ্চা ফুটায়। বাচ্চারা উড়াল শিখলে তাদের নিয়ে চলে যায় পাখিরা। এ বছর ও তাই হয়েছে। সেই বাসায় বাচ্চা ফুটিয়েছে এক জোড়া ( আঞ্চলিক ভাষায়) পোড়া ময়না পাখি। ছানা দুটি দিনে দিনে বড় হচ্ছে। এখন উড়াল শিখতে চায়। বৃহষ্পতিবার দুপুরে উড়াল শিখতে গিয়ে একটি ছানা মাটিতে পড়ে গিয়ে কিছুটা আহত হয়। সেটি চোখ এড়ায়নী পাখী প্রেমিক  নজরুলের। তিনি সাথে সাথেই ছানাটি কে ধরে সেবা সুশ্রষা করে সুস্থ করে তোলেন। এ দিকে পাখিরা এসে বাসায় ছানা কে দেখতে না পেয়ে কিচির মিচির শুরু করে। নজরুল ছানা টিকে যত্ন সরকারে  বাসায় পৌঁছে দিয়ে পাখিদেরকে শান্ত করেন। একজন সাংবাদিকের পাখির ছানার প্রতি এমন মানবিকতা দেখিয়ে এলাকায় বেশ প্রশংসা কূড়িয়েছেন তিনি।
পোষ্টটি শেয়ার করুনঃ

About Author

আড়াইহাজারের সময়

আড়াইহাজারের সময় হলো সবচেয়ে দ্রুত জনপ্রিয় হওয়া ওয়েব পোর্টাল। আড়াইহাজারের মানুষের সবচেয়ে বিশ্বস্ত পত্রিকা। আড়াইজারের সময়ের সাথেই থাকুন। আমরা সর্বদা সত্য প্রকাশে অবিচল।

Comments are closed.